মে’য়েদের বয়স বাড়ার স’ঙ্গে স’ঙ্গে একটি নির্দিষ্ট কৌনিক মাত্রায় স্ত’ন ঝুলে যাওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়, কিন্তু কি’শোরী বয়সে স্ত’ন ঢিলা হয়ে যাবার

প্রবনতা স্বাভাবিক শাররীক পরিবর্তনের পর্যায়ে পড়েনা। কি’শোরীর স্ত’ন ঝুলে যাবার সম্ভাব্য কারনগুলোর মধ্যে আছে শ’রীরের ওজন বেড়ে যাওয়া, স’ন্তান গ’র্ভধারন, ধুমপান অথবা বংশগত কারনে বড় আকৃতির স্ত’ন থাকা এবং বড় স্ত’নে প্রয়োজনীয় সার্পোট/সঠিক আকারের ব্রা পরিধান না করা।

কি কি কারন থাকতে পারে ?

স্ত’ন ঢিলা হয়ে যাবার স্বাভাবিক কারন হলো স্ত’ন অতিরিক্ত বড় এবং ভারী হয়ে যাওয়া, অথবা অপ্রতুল স্ত’ন-সার্পোট। স’ন্তান জ’ন্ম’দানের কারনে অর্থাৎ প্রসুতিকালীন সময় স্ত’নের আকার বড় হয়ে যাওয়া এবং

কি কি লক্ষনসমুহ প্রকাশ পায় ?

না’রী স্ত’ন অস্থিবন্ধ’নীতে অবলম্বন করেথাকে; যদি ঐসকল অস্থিবন্ধ’নী প্রসারিত হয়, পেশীকলার শ’ক্তি হ্রাস পাবার কারনে স্ত’নের প্রাকৃতিক অবস্থান সাধারনত নিচে নেমে আসে। স্ত’নবোঁটার স্থানচ্যুতি (স্ত’নের একদম নিচের দিকেচলে আসা) এবং স্ত’নের দুই পাশে চামড়া কুচকে যাওয়া থেকেও স্ত’ন ঝুল সহযে অনুমান করা যায়।

কি কি সমাধান রয়েছে ?

কি’শোরী বয়সে স্ত’নের ঝুলে যাওয়া রোধে এমন পদক্ষেপ নিতে হবে যেন স্ত’নের অস্থিবন্ধ’নী প্রসারীত না হয় এবং স্ত’ন চামড়ার স্থিতিস্থাপকতা ন’ষ্ট না হয়। যেহেতু প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষ ধুমপান চামড়ার স্থিতিস্থপকতা দু’র্বল করে দেয় তাই ধুমপায়ীর তুলনায় অধুমপায়ী

না’রীর স্ত’ন শিথিলতার প্রবনতা কম। স্বাস্থ্যকর শাররীক ওজন রক্ষা করা এবং উচ্চ-প্রভাব ব্যয়াম এবং দৈনন্দিন জীবনযাপনে পর্যা’প্ত স্ত’ন সার্পোট স্ত’নের ঝুলে যাওয়া প্রতিহত করতে পারে। ‘মেডিসিন ইন স্পোর্টস এন্ড এক্সসেরসাইজ‘ জার্নাল এর জুলাই ২০১০ সংখ্যায় ছাপা এক প্রতিবেদনে বলা হ

য় – যে সকল স্পোর্টস ব্রা ক্রিয়াকালীন অধিক ওজনের স্ত’নকে সম্পুর্ন উত্তোলন এবং চে’পে রাখতে স’ক্ষম তা না’রীর অস্বস্তির সাথে সাথে স্ত’নের আকার/গঠনপরিবর্তন প্রতিহত করে।

বিবেচ্য বি’ষয়সমূহ কি কি হতে পারে ?

অনেক না’রী চিন্তিত হন – স’ন্তানকে স্ত’নদানের সাথে স্ত’নের ঢিলা হয়ে যাবার সম্প’র্ক আছে কিনা? কিন্তু গবে’ষণায় দেখা গেছে স্ত’নদানের সাথে স্ত’নের আকার এবং গঠনের পরিবর্তনের কোন প্রকার নেগেটিভ সম্প’র্ক নেই। মাইয়োক্লিনিক ওয়েবসাইটের মতে প্রসুতিকালীন স্ত’ন ঝুলার কারন হলো হঠাৎ স্ত’নের আকার পরিবর্তন এবং পরবতীতে তা আবার স্বল্প সময় ব্যবধানে কমে যাওয়া।

কি কি সাবধানতা অবলম্বন জরুরি ?

স্ত’নের আকার/গঠনে যেকোন অস্বাভাবিক পরিবর্তন এবং স্ত’নবোঁটার স্থান, আকার কিংবা গঠন পরিবর্তন হয়তো অন্যকোন কঠিন সমস্যার পুর্বাবাশ হতে পারে। আপনার উচিত স্ত’নের মাসিক স্ব-পর্যবেক্ষন করা। যেকোন হঠাৎ পরিবর্তন লিপিবদ্ধ করুন। আপনার স্ত’নের আকার সম্প’র্কে কোন প্রকার অস্বাভাবিকতা আঁচ করলে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে অস্বস্তি করবেন না করণ অনেক সময় টিউমার হওয়ার কারনেও আপনার স্ত’নের আকৃতির পরিবর্তন হতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here