নভেল করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বিশ্বজুড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৪ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে দুই লক্ষাধিক মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এই বৈশ্বিক মহামারীতে মৃতের সংখ্যা ৬ লাখ ৯৭ হাজার ছাড়াল। সরকারি হিসেবে, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি সাড়ে ৮৪ লাখ ছুঁইছুঁই।

রিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার’র তথ্য মতে, আজ ৪ আগস্ট, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত সারা পৃথিবীতে করোনায় আক্রান্ত বেড়ে ১ কোটি ৮৪ লাখ ৪২ হাজার ৮৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে ৬ লাখ ৯৭ হাজার ১৮০ জন ইতোমধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন। বিপরীতে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ১৬ লাখ ৭২ হাজার ৬২৩ জন।

বর্তমানে চিকিৎসাধীন আছেন ৬০ লাখ ৭৩ হাজার ৪৪ জন করোনারোগী, যাদের মধ্যে ৬৪ হাজার ৬৭২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পৃথিবীর সর্বোচ্চ ৪৮ লাখ ৬২ হাজার ১৭৪ জনের শরীরে এখন পর্যন্ত কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। লাতিন আমেরিকার বৃহত্তম দেশ ব্রাজিলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ লাখ ৫১ হাজার ৬৬৫ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে ভাইরাসটি।

এছাড়া ভারতে তৃতীয় সর্বোচ্চ ১৮ লাখ ৫৫ হাজার ৩৩১ জনের শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে। আর রাশিয়ায় ৮ লাখ ৫৬ হাজার ২৬৪ জন (চতুর্থ) ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ৫ লাখ ১৬ হাজার ৮৬২ জনের (পঞ্চম) শরীরে ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছে।

এ হিসেবে শীর্ষ দশে রয়েছে –  ইতালি (মৃত্যু ৩৫ হাজার ১৬৬ জন), ফ্রান্স (মৃত্যু ৩০ হাজার ২৯৪ জন), স্পেন (মৃত্যু ২৮ হাজার ৪৭২ জন), পেরু (মৃত্যু ১৯ হাজার ৮১১ জন) ও ইরান (মৃত্যু ১৭ হাজার ৪০৫ জন)।

এছাড়া রাশিয়ায় ১৪ হাজার ২০৭ জন, কলম্বিয়ায় ১১ হাজার ১৭ জন, বেলজিয়ামে ৯ হাজার ৮৫০ জন, চিলিতে ৯ হাজার ৭০৭ জন, জার্মানিতে ৯ হাজার ২৩২ জন, কানাডায় ৮ হাজার ৯৪৭ জন, দক্ষিণ আফ্রিকায় ৮ হাজার ৫৩৯ জন,

নেদারল্যান্ডসে ৬ হাজার ১৪৯ জন, পাকিস্তানে ৫ হাজার ৯৮৪ জন, সুইডেনে ৫ হাজার ৭৪৪ জন, ইকুয়েডরে ৫ হাজার ৭৬৭ জন, তুরস্কে ৫ হাজার ৭৪৭ জন, ইন্দোনেশিয়ায় ৫ হাজার ৩০২ জন, ইরাকে ৪ হাজার ৯৩৪ জন, মিসরে ৪ হাজার ৮৮৮ জন, চীনে ৪ হাজার ৬৩৪ জন, আর্জেন্টিনায় ৩ হাজার ৮১৩ জন, বলিভিয়ায় ৩ হাজার ২২৮ জন, বাংলাদেশে ৩ হাজার ১৮৪ জন, সৌদি আরবে ২ হাজার ৯৪৯ জন, রোমানিয়ায় ২ হাজার ৪৩২ জন ও ফিলিপাইনে ২ হাজার ১০৪ জনের প্রাণ কেড়েছে কোভিড-১৯ মহামারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here