বিশ্বের সবচাইতে দামি রো’গ বললেও ভু’ল বলা হবে না, বিশ্বের দামি রো’গের কারণে এই রো’গটি একেবারেই বিরল। যে কারণে একটি দু’ধের শি’শুকে ১৬ কোটি টাকার ই’নজেকশন দেওয়া হবে।

রো’গের নাম জেনেটিক স্পাইনাল ম্যাসকুইলার আথ্রপি। বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ই’নজেকশন যেটা দুই মাসের এই দু’ধের শি’শুকে দেওয়া হবে।

স্বাভাবিকভাবেই ই’নজেকশনের দাম দেখেই বোঝা যাচ্ছে এই রো’গ কতটা জটিল, যার কারণে একটি দুই মাসের দু’ধের শি’শুকে দেওয়া হচ্ছে বিশ্বের সবথেকে ব্যয় বহুল ইঞ্জেকশন।

অন্যান্য সব জটিল রো’গ এমন কি ক্যা’ন্সারের থেকেও মা’রাত্মক। এ রো’গের কারণে বুকের পেশি দু’র্বল হয়ে যায় আর তার ফলেই শ্বাস নিতে প্রচন্ড অসুবিধে হয়।

সেই কারণেই ই’নজেকশনের মাধ্যমে রো’গ প্রতিরোধ করার ক্ষ’মতা গড়ে তোলার চেষ্টা করা হয়। এই ই’নজেকশনটি আ’ক্রান্ত রো’গীকে মাত্র একবার দেয়া হয়। ই’নজেকশনের নাম জোলগেনসমা, যা কিনা আমেরিকা, জাপান থেকে নিয়ে আসা হয়।

২০১৭ সালে অনেক গবে’ষণা এবং পরীক্ষার পরে এই রো’গের ক্ষেত্রে সফলতা আসে। ২০১৭ সালে ১৫ শি’শুকে এই ও’ষুধ দেয়া হয়।
এডওয়ার্ড নামে এক শি’শুকে ১৬ কোটি টাকার ই’নজেকশন দেয়া হবে।

তার বাবা-মা ই ব্যয়বহুল চিকিৎসার জন্য তহবিলের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করা শুরু করেছেন। এখন পর্যন্ত সহায়তা হিসাবে ১.১৭ কোটি টাকা পেয়েছেন। তার বাবা-মা বলছেন, টাকার চেয়ে তাদের কাছে শি’শুর জীবন অনেক দামি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here