নাসির হোসেন বাংলাদেশ ক্রিকে’টে জাতীয় এক সময়ের একজন নিয়মিত মুখ ছিলেন। দারুণ পারফর্মেন্সর জন্য তকমা পেয়েছিলেন ‘ফিনিসার’। তারপরই যেন ঘটে ছন্দপতন হঠাৎ করেই যেন হা’রিয়ে যান রংপুরের এই ক্রিকেটার।

দেশের ক্রিকে’টে যেন হা’রিয়ে যাওয়ে এক নাম এখন নাসির।তবে এর মাঝেও হঠাত যেন এক আসার আলো দেখলেন নাসির হোসেন।এবারের আবুধাবি টি-১০ লীগের নিলাম দল পেয়েছেন এই নাসির হোসেন।

যেখানে দল পেয়েছেন মোট ৬ বাংলাদেশি ক্রিকেটার। আগামী ২৮ জানুয়ারি থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টি-টেন ক্রিকেট লিগের চতুর্থ আসর।

এই টুর্নামেন্টে প্লেয়ার্স ড্রাফটে বাংলাদেশ থেকে ৬ জন পেলেও ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটারকে এনওসি না দেওয়ার পক্ষে বিসিবি। শেষ পর্যন্ত এমনটা বাস্তবে হলে, টি-টেন লিগে দল পাওয়ার পরও আসরে খেলা হচ্ছে না কোন টাইগার ক্রিকেটারের।

থাকবে আ’ক্রান্ত হওয়ার আর সংক্রমিত করার ঝুঁ’কিও।আবুধাবি টি-টেনে ডাক পাওয়া ৬ জনের ৪ জন অর্থাৎ মোসাদ্দেক-তাসকিন-আফিফ আর মাহেদী বেশ ভালোভাবেই আছেন বিসিবির পরিকল্পনায়।

তাইতো তাদের নিয়ে কোন ঝুঁ’কি নিতে নারাজ দেশের ক্রিকে’টের অভিভাবক সংস্থাটি। আপাতত দৃষ্টি ক্যারিবিয়ান সফরেই।সেক্ষেত্রে প্রশ্ন থাকছে, জাতীয় দলে আপাতত পরিকল্পনার বাইরে থাকা দুই ক্রিকেটার নাসির আর মোক্তারের ব্যাপারে কি সি’দ্ধান্ত নিচ্ছে বোর্ড?

তাদেরও কি দেয়া হচ্ছে না এনওসি?গুঞ্জন উঠেছে এই দুইজনকে খেলতে দিতে অনুমতি দিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। দুই-একদিনের মধ্যে চূড়ান্ত সি’দ্ধান্ত জানাবে বিসিবি এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছেন, “ওই সময় আমাদের এখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সফর আছে।আবার ন্যাশনাল ফোল্ডের বাইরের ক্রিকেটারও আছে টি-টেনে। আচমকা তাই আমি কিছু বলতে পারছি না বা সি’দ্ধান্ত নিতে পারছি না।

সংশ্লিষ্ট সবার স’ঙ্গে কথা বলে আমরা দু-একদিনের মধ্যে সি’দ্ধান্ত চূড়ান্ত করে ফেলব।এই টুর্নামেন্টে প্লেয়ার্স ড্রাফটে বাংলাদেশ থেকে দল পেয়েছেন ৬ জন ক্রিকেটার। তারা হলেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নাসির হোসেন , শেখ মেহেদী হাসান এবং মুক্তার আলী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here